২৩শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং | ১০ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ৬ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

শিরোনাম :

নতুন রাষ্ট্রপতি কে হবেন?

নিজস্ব প্রতিনিধি |টাইমস বাংলা ২৪

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই দুটি সাংবিধানিক পদে নিয়োগ দিতে হবে সরকারকে। বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার পদত্যাগের পর প্রধান বিচারপতি পদ শূন্য আছে। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠতম বিচারপতি আব্দুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রধান বিচারপতির চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত সরকারকে নিতে হবে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে। বর্তমান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২২ এপ্রিল। সরকারের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি নিশ্চিত করেছেন দ্বিতীয় মেয়াদে আবদুল হামিদের রাষ্ট্রপতি হিসেবে মনোনয়নের সম্ভাবনা খুবই কম।

সরকারের নীতি নির্ধারক মহলে রাষ্ট্রপতি হিসেবে একাধিক ব্যক্তির নাম ভাবা হচ্ছে। এদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর অান্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী এবং আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের নাম অন্যতম।

তবে সৈয়দ আশরাফ রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণে আগ্রহী নয় বলেই জানা গেছে। ঘনিষ্ঠদের তিনি বলেছেন, এ জন্য তিনি প্রস্তুত নন।

অাওয়ামী লীগের দলীয় নীতি নির্ধারক সহ দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর অান্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভীর নতুন রাষ্ট্রপতি মনোনয়নে নাম থাকলেও বিতর্ক রয়েছে।

অাসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তাবিদ অাউয়াল হলো ড.গওহর রিজভীর মেয়ের জামাই এবং বেয়াই হলো বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আওয়াল মিন্টু।

অাগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামীলীগের নীতি নির্ধারকরা দলের ভবিষ্যৎ চিন্তা করছেন, বর্তমান সরকার ২০৪১ সালে ডিজিটাল ও উন্নত রাষ্ট্র গড়ার লক্ষে বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন,তারই পরিপ্রেক্ষিতে, ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশরাফ হোসেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর বেয়াই। তাঁর নিয়োগ নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া হয় কিনা কিংবা জাতীয় ভাবে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে আওয়ামী লীগের নীত নির্ধারকরা কিছুটা দোটানায়।

 

অাগামী ১১তম জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে নতুন রাষ্ট্রপতি হিসেবে
অনেকটাই এগিয়ে আছেন বঙ্গবন্ধুর একান্ত সচিব আওয়ামীলীগের উপদেষ্টামন্ডলী সদস্য, আওয়ামীলীগের অর্থ ও পরিকল্পনা উপ কমিটির চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ২০ তম জাতীয় সম্মেলনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থনৈতিক উপদেষ্টা, বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের সাবেক সচিব ও ডিজি, রাজউক ও এনবিআর এর সাবেক চেয়ারম্যান, আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন অর্থনীতিবিদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ এবং সিদ্ধেশ্বরী কলেজের সাবেক শিক্ষক, দেশ বিদেশে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালনকারী উন্নয়নের নিরব কারিগর, খুলনা তথা দক্ষিনাঞ্চল সহ সারাদেশে সজ্জন মানুষ হিসেবে পরিচিত, আন্তর্জাতিক মহলে রয়েছে যার ব্যাপক সখ্যতা, সৎ ও শিক্ষা দীক্ষায় স্বমহিমায় উজ্জ্বীবিত ড. মশিউর রহমান।

এছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. আ.আ.ম.স আরেফিন সিদ্দিকীর নামও আলোচনায় রয়েছে বলে একাধিক সূত্র টাইমস বাংলাকে নিশ্চিত করেছে।

 

 

শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৭